কাঁকসায় প্রেমিকার স্বামীকে খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্তের আত্মসমর্পন দুর্গাপুর আদালতে

আমার কথা, দুর্গাপুর, ৯অক্টোবরঃ
কাঁকসার বিদবিহারের জামদহ এলাকার খুনের ঘটনায় নয়া মোড়। মুল অভিযুক্ত ঝন্টু মন্ডলের বন্ধু চঞ্চল পান আজ দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে আত্মসমর্পন করল। আত্মসমর্পণ করলেও অদ্ভূত বিষয় খুনের ব্যাপারটি সম্পূর্ন অস্বীকার করে চঞ্চল পান। অথচ আত্মসমর্পণের কারন জানতে চাইলে তখন সে চুপ করে যায়। বিচারক তাকে ১৪দিনের পুলিশী হেফাজতের নির্দেশ দেন। পাশাপাশি মৃত চঞ্চল ঘোষের স্ত্রী রিয়া ঘোষ ও তার প্রেমিক ঝন্টু মন্ডলকেও আজ আদালতে পুনরায় পেশ করা হলে বিচারক তাদের ১৪দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।
প্রসঙ্গতঃ ওই এলাকার প্রতিবেশী যুবক ঝন্টু মন্ডলের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন চঞ্চল ঘোষের স্ত্রী রিয়া ঘোষ। দিন কয়েক আগে বিষয়টি জানতে পারেন রিয়ার স্বামী চঞ্চল। এরপর থেকেই বিষয়টি নিয়ে দু’জনের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত। গত ৩০সেপ্টেম্বর ঘরে একাই ছিলেন চঞ্চলবাবু। সেই সময় ঝন্টু মন্ডল তার বন্ধু চঞ্চল পানকে সাথে নিয়ে চঞ্চলবাবুর ঘরে ঢোকে আর সেখানেই চঞ্চলবাবুর মাথায় গুলি করে তাকে খুন করে চঞ্চল পান বলে অভিযোগ উঠছে। ঘটনার পরেই রিয়া ও ঝন্টুকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও গা ঢাকা দিয়ে ছিল মূল অভিযুক্ত চঞ্চল। কাঁকসা থানার পুলিশ তার খোঁজে তল্লাশী চালিয়ে যাচ্ছিল। এরই মধ্যে আজ দুপুরে সে দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে আত্মসমর্পণ করে।